অসহ্য মাইগ্রেন? স্বস্তি পেতে জেনে নিন কিছু ঘরোয়া টোটকা

Unbearable migraine? Learn some home remedies to get relief

আপনার মাইগ্রেন আছে? অসহ্য যন্ত্রনায় মাথা ছিঁড়ে যাওয়া, বমি বমি ভাব, চোখে কষ্ট, এগুলো যদি আপনার নিত্যসঙ্গী হয় তবে জেনে নিন মাইগ্রেনে স্বস্তি পাওয়ার কিছু ঘরোয়া উপায়। যদিও মাইগ্রেন ব্যাপারটা সম্পূর্ণ জেনেটিক। এর কোনও চিকিত্সাও সেভাবে নেই। তবু যন্ত্রনার সময় কিছুটা আরাম দিতে পারে এই সব ঘরোয়া জিনিস বা টোটকা।

★★ ল্যাভেন্ডর অয়েল ::::: ল্যাভেন্ডর অয়েলের শ্বাস নিলে মাইগ্রেনের যন্ত্রনায় আরাম পাওয়া যায়। জল ফোটান। প্রত্যেক দুই-তিন কাপ গরম জলে দুই থেকে তিন ফোঁটা ল্যাভেন্ডর অয়েল দিয়ে সেই জলের বাষ্প শ্বাস ভরে নিলে মাইগ্রেনের যন্ত্রনা উপশম হয়।

★★ পেপারমিন্ট অয়েল ::::: এই তেল ল্যাভেন্ডর অয়েলের মতো জলে মিশিয়ে হালকা করার প্রয়োজন পড়ে না। পেপারমিন্ট অয়েলের শিশি খুলে নাকের কাছে ধরে সরাসরি শ্বাস নিন।

★★ মাসাজ ::::: আঙুলের ডগার হালকা চাপে মাথার তালু মাসাজ করতে তাকুন। মাসাজ করতে করতে মাথার মাঝখান থেকে পিছনে ঘাড়ের দিকে নামতে থাকুন।

★★ ভিনিগার ::::: তিন কাপ ফুটন্ত গরম জলের মধ্যে কাপ কাপ ঠান্ডা জল, ১/৪ কাপ ভিনিগার মিশিয়ে নিন। এই জলের বাষ্পের শ্বাস ভরে নিন।

★★ মাথায় ঠান্ডা কিছু দিয়ে রাখুন ::::: কোনও কোল্ড ব্যাগবা ছান্ডা জলে ভেজা রুমাল দিয়ে জলপট্টি দিন।

★★ আদা জল ::::: জলের মধ্যে আদা কুচি দিয়ে ফুটিয়ে সেই জল আস্তে আস্তে পান করুন। যন্ত্রনা কমবে।

★★ বরফ প্যাক ::::: মাথা ব্যাথা বেশি হলে একটি প্লাস্টিকে কিছু বরফের টুকরো নিয়ে মাথায় ব্যাথা জায়গায় দিয়ে রাখতে পারেন৷ এতে মাথা ব্যাথা কম হবে৷ বরফ আপনার শিরার স্ফীতি কম করে৷ এতে ব্যাথা কম হতে পারে৷

★★ ভিটামিন B2 ::::: ভিটামিন B2 এর পরিমাণ শরীরে বাড়লে মাইগ্রেনের ব্যাথা কম হয়৷ ৪০০ এম জি ভিটামিন বি২-র ট্যাবলেট মাইগ্রেন কম করতে সাহায্য করে৷ এছাড়া মাছ, মাংস, ডিম, দুগ্ধজাত খাদ্য, চিজ, বাদাম, এসবে ভিটামিন B2 এর পরিমাণ বেশি থাকে৷

★★ বিশ্রাম পদ্ধতি ::::: মাথা ব্যাথার প্রকোপ শুরু হলে আপনার মস্তিষ্ককে বিশ্রাম দিন৷ চিন্তা মুক্ত থাকুন৷ এর জন্য প্রয়োজনে মেডিকেশন, যোগ ব্যায়ামও করতে পারেন৷

★★ হার্বাল চা ::::: হার্বাল চা মাথা ব্যাথার পক্ষে খুবই উপকারী৷ হার্বাল চায়ে আঁদা কুচি, লেবু দেওয়া থাকে৷ এর ফলে ব্যাথার প্রকোপ কম থাকে৷ আবার মাইগ্রেনের ফলে যে বমি ভাব তৈরি হয় তা কম করতেও সাহায্য করে এই উপাদানগুলি৷

★★ আকু পাঙচার ::::: মাথার ব্যাথা কমানোর জন্য যে ওষুধ ব্যবহার করা হয় তার থেকে অনেক বেশি প্রভাশালী ও উপকারী হল আকু পাঙচার পদ্ধতি৷ এর প্রভাপ ওষুধের মতো দ্রুত কার্যকরী হয় না৷ কিন্তু বেশিক্ষণ প্রভাবশালী হয়৷

★★ অন্ধকার ::::: ঘরের আলো নিবিয়ে চুপচাপ শুয়ে থাকুন। আলোয় থাকলে মাইগ্রেন বাড়ে। যেখানে আওয়াজ বেশি সেখান থেকে সরে আসুন।

★★ ৬০ সেকেন্ডে মাথাব্যথা দূর ::::: অসহ্য ব্যাথা হলে মাত্র ৬০ সেকেন্ডে মাথাব্যথা দূর করুন। বা হাতের বুড়ো আঙ্গুল এবং তর্জনির মাঝখানের অংশে অন্য হাতের বুড়োআঙুল ও তর্জনি দিয়ে চাপ দিন এবং ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে ম্যাসাজ করুন। একই ভাবে ডান হাতেও করুন। বিশেষজ্ঞরা বলেন, আশা করা যায় এতে এক মিনিটেই মাথা ব্যথা সারবে।