Home আসানসোল জামুড়িয়া থানার বড়ো সাফল্য, উদ্ধার ১৫টি চোরায় বাইক সহ ধৃত একজন!

জামুড়িয়া থানার বড়ো সাফল্য, উদ্ধার ১৫টি চোরায় বাইক সহ ধৃত একজন!

0
জামুড়িয়া থানার বড়ো সাফল্য, উদ্ধার ১৫টি চোরায় বাইক সহ ধৃত একজন!

জামুড়িয়া: ভুয়ো নম্বর প্লেট লাগিয়ে চুরি করা বাইক কম দামে এলাকার বিক্রি করতো একদল দুষ্কৃতী। এই ঘটনার খবর পেয়ে জামুড়িয়া থানার পুলিশ অভিযান চালিয়ে দু’জায়গা থেকে মোট ১৫টি বাইক ও এক জন যুবক কে গ্রেফতার করেছে জামুড়িয়া থানার পুলিশ। ধৃতের নাম পিন্টু ব্যানার্জী, নন্ডি গ্রামের তার বাড়ি বলে জানতে পারা যায়।

গোপন সূত্রে খবর পেয়ে নন্ডি গ্রামের বাসিন্দা পিন্টু ব্যানার্জীর বাড়িতে অভিযান চালায় জামুড়িয়া থানার পুলিশ। তাঁর বাড়ি থেকে উদ্ধার হয় দুটি বাইক। তারপর পুলিশ পিন্টু কে গ্রেফতার করেন। ১৮ তারিখে আসানসোল আদালতে তোলার পর পুলিশি হেপাজতে রেখে পিন্টুকে জেরা করে জানতে পারে আরও ১৩টি চোরাই গাড়ি রয়েছে।তারপর তাঁকে সঙ্গে নিয়ে সাঁকড়ি গ্রামের একটি পল্ট্রি ফার্ম থেকে ৭ টি বাইক এবং একটি পরিত্যক্ত বাড়ি থেকে ৬ টি চোরাই বাইক উদ্ধার করে জামুড়িয়া থানার পুলিশ।

এ সি পি তথাগত পান্ডে এক সাংবাদিক বৈঠকে বলেন, অভিযোগের ভিত্তিতে জামুড়িয়া থানার এ এস আই সঞ্জয় হাজরার নেতৃত্বে একটি দল অভিযান চালিয়ে তিন দিনে মোট ১৫ টি চোরাই বাইক সহ পিন্টু ব্যানার্জী নামে এক যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে। ঝাড়খন্ড সহ বিভিন্ন এলাকা থেকে বাইক চুরি করে ভুয়ো নম্বর লাগিয়ে সেই বাইক গুলি কম দামে বিক্রি করছিল ওই যুবক।

এই সাংবাদিক বৈঠকে এসিপি ছাড়াও হাজির ছিলেন সিআই পার্থ সারথী চক্রবর্তী, শ্রীপুর ফাঁড়ির আধিকারিক রঞ্জিৎ বিশ্বাস, কেন্দা ফাঁড়ির আধিকারিক পরিমল বিশ্বাস, চুরুলিয়া ফাঁড়ির আধিকারিক দিবেন্দু মুখার্জী, থানার মেজো বাবু বিমল চন্দ্র পাত্র, এএসআই মিহির দে, বিবেক চ্যাটার্জী, সঞ্জয় হাজরা সহ অন্যান্য পুলিশ কর্মীরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here